শিক্ষিত বেকারদের জন্য সুখবর, সৃষ্টি হচ্ছে ১০ লাখ নতুন কর্মসংস্থান

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘আইসিটি সেক্টরে ২০২১ সালের মধ্যে ১০ লাখের বেশি লোকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে।’
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি প্রাঙ্গণে জাতীয় হাই স্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা (ঢাকা মহানগর আঞ্চলিক পর্ব) উদ্বোধনকালে শুক্রবার সকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের ১২টি জেলায় তথ্য প্রযুক্তি ইনিস্টিটিউট গড়ে তোলা হবে। ইতোমধ্যে গাজীপুরে আমরা আইসিটির জন্য একটি জায়গা কিনেছি এবং সেখানে এক লাখের বেশি লোক কাজ করবে।
সেখান থেকে তারা প্রশিক্ষণ নিয়ে দেশ-বিদেশে আইসিটি সেক্টরে নেতৃত্ব দেবে।’ তিনি বলেন, ‘২০২১ সালে ওয়ার্ল্ড আইসিটি প্রোগ্রামিং হোস্ট বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হবে। এটা আমাদের আইসিটি সেক্টরের একটি অন্যতম অর্জন।’
জুনাইদ আহমেদ পলক আরো বলেন, ‘আমাদের দেশের অধিকাংশ শিক্ষার্থীর অংক, ইংরেজি ও বিজ্ঞানের প্রতি আগ্রহ বেশি। শুধু ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার হলে হবে না, সাথে আমাদের কিছু দক্ষ আইটি বিশেষজ্ঞও দরকার।’
এ সময় তিনি আইসিটি বিষয়ে শিক্ষার্থীদের গুরুত্ব দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, ঢাবির তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের পরিচালক ড. কাজী মুহাইমিন-আস-সাকিব প্রমুখ।
জাতীয় হাই স্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার আয়োজক সরকারের আইসিটি বিভাগ এবং প্রধান পৃষ্ঠপোষক রবি আজিয়োটা লিমিটেড। দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতায় প্রায় ১১শ শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে।
এতে শিক্ষার্থীদের জন্য প্রোগ্রামিং এবং কুইজ প্রতিযোগিতা রয়েছে। দুপুরে দুই ক্যাটাগরিতে মোট ১৪০ জন শিক্ষার্থীকে বিজয়ী হিসেবে পুরস্কৃত করা হবে। দেশের ১৬টি শহরে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। সব অঞ্চলের বিজয়ীদের নিয়ে আগামী ১৬ এপ্রিল ঢাকার কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ