যারা আইন বিষয়ে উচ্চ শিক্ষা নিতে চান তাদের জন্য টিপস

ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রযাত্রার প্রাক্কালেই প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ১৯৯৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এবিএম মফিজুল ইসলাম পাটোয়ারী প্রতিষ্ঠা করে। ড. পাটোয়ারী আইন শাস্ত্রের অধ্যাপক ও গ্রন্থ প্রণেতা তাই তার প্রতিষ্ঠিত ইউনিভার্সিটিতে আইন অনুষদ সর্বোচ্চ গুরুত্ব পেয়েছে। উল্লেখ্য যে, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের মধ্যে প্রথম আইন বিভাগ চালু করা হয়।
বর্তমানে দুই হাজার ছাত্রছাত্রী নিয়ে আইন অনুষদ শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে ছাত্র-ছাত্রীরা এখানে পড়ালেখা করার সুযোগ পায়। দিবা শাখার পাশাপাশি চাকরিজীবীদের সুবিধার্থে সান্ধ্যকালীন শাখায়ও এখানে পড়ালেখার সুযোগ রয়েছে। ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন অনুষদে যে কোর্সসমূহে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করা হচ্ছে সেগুলো হলো : চার বছর মেয়াদী এলএলবি (সম্মান) দিবা শাখা, চার বছর মেয়াদী এলএলবি (সম্মান) সান্ধ্যকালীন শাখা, দুই বছর মেয়াদী এলএলবি (পাস) প্রোগ্রাম, একবছর মেয়াদী এলএলএম (মাস্টার্স) প্রোগ্রাম, দুই বছর মেয়াদী এলএলএম (মাস্টার্স) প্রোগ্রাম। এছাড়াও অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের অধীনে দুই বছর মেয়াদী মাস্টার্স অব হিউম্যান রাইটস‘ল’ প্রোগ্রাম চালু রয়েছে। যা বাংলাদেশে আর কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে নেই। বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও আইনজ্ঞ কর্তৃক এ অনুষদের একাডেমিক সিলেবাসগুলো প্রণীত এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন কর্তৃক অনুমোদিত। আইন অনুষদের উপদেষ্টা হিসেবে আছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ ২৫ জন পূর্ণকালীন শিক্ষক। জ্ঞান ও মেধা বৃদ্ধি এবং আইন বিষয়ে শিক্ষার্থীদের বাস্তব ধারণা প্রদানের লক্ষ্যে, ঢাকাসহ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথিতযষা আইনের অধ্যাপক, বিচারপতি বিখ্যাত আইনজীবী সমন্বয়ে ইউনিভার্সিটির একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। শুধুমাত্র পুঁথিগত বিদ্যায় পাঠদান সীমাবদ্ধ না রেখে নিয়মিতভাবে এখানে বিভিন্ন সেমিনার, সিম্পোজিয়াম ও ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হয়ে থাকে।
সম্প্রতি এখানে শিশু অধিকার, নারী অধিকার, কনভেনশন বা টর্চার সংক্রান্ত উত্তরাধিকার, জুডিশিয়াল রিভিউ, সিভিল জাস্টিস সিস্টেম ইত্যাদি বিষয়ে সেমিনার, সিম্পোজিয়াম ও ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হয়েছে। এসব সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা আইনের বিভিন্ন তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক দিক সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করতে পারে। একজন সফল আইনজীবী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে ছাত্রছাত্রীরা যাতে আইনের জটিল বিষয় মোকাবেলা করতে পারে সে জন্য এখানে ‘বার প্রাকটিশনারস ট্রেনিং প্রোগ্রাম (বিপিটিসি)’ নামে একটি কোর্স চালু রয়েছে। এ কোর্সের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের আদালতের কার্যধারা, বিভিন্ন ধরনের ড্রাফটিং, অ্যাডভোকেসি ইত্যাদি বিষয়ে হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। সম্প্রতি এ কোর্সটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে শিক্ষার্থীরা ডিগ্রি গ্রহণ করে এবং আদালতে প্রাকটিশনার আইনজীবী হিসেবে কাজ শুরু করতে পারে তার জন্য এ ব্যবস্থা।
অত্র ইউনিভার্সিটিতে রয়েছে একটি সমৃদ্ধ লাইব্রেরি। আইন বিষয়ের অনেক মূল্যবান গ্রন্থ ও রেফারেন্স বই লাইব্রেরিতে পরিপূর্ণ। লাইব্রেরিতে ডিএলআর, বিএলবি, বিএলসিএমএলআর, বিএলটি, এডিসি ইত্যাদিসহ বাংলাদেশের সকল ‘ল’ জার্নালের আপ টু ডেট কপি রয়েছে। সম্প্রতি ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন অনুষদের একটি গ্রুপ নেপালের কাঠমান্ডুতে, কাঠমান্ডু স্কুল অব ’ল ভিজিট করেন। সেখানে তারা নেপালের সুপ্রিম কোর্ট, অ্যাটর্নি জেনারেল অফিসসহ আইন সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ভিজিট করেন এবং নেপালের আইন শিক্ষা ব্যবস্থা সম্পর্কে ধারণা লাভ করেন।
বিস্তারিত তথ্যের জন্য যোগাযোগ : ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ৬৬ গ্রিনরোড, ঢাকা-১২০৫। বাড়ি # ০৪, সড়ক # ০১, ব্লক # এফ, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
সৌজন্যে : ইনকিলাব
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ