মেধাবীদের ডিও লেটারে স্বীকৃতি দেবে সরকার

Share on facebook
Share on twitter
Share on pocket
Share on email
Share on print

শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় আরো বেশি উৎসাহিত করতে সপ্তম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত যারা বার্ষিক পরীক্ষায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকার করবে তাদের স্বীকৃতি স্বরূপ আধা-সরকারি পত্র বা ডিও লেটার দেবে সরকার। ২০১৬ সাল থেকে যারা উত্তীর্ণ হয়ে পরবর্তি ক্লাসে উঠেছেন সেইসব মেধাবী শিক্ষার্থীদের এই ডিও লেটার দিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ।

মন্ত্রিপরিষদের অতিরিক্ত সচিব মাছুদুর রহমান পাটোয়ারী এ সংক্রান্ত বিষয়ে সম্প্রতি সংশ্লিষ্টদের চিঠি দিয়েছেন। সেই চিঠিতে বলা হয়েছে, ইউএনওরা ডিও লেটার গ্রহণকারী ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা, এ বিষয়ে তাদের মতামত অনুভূতি, ইতি-নেতিবাচক দিক, মন্তব্য বিষয়ে একটি প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠাবে। পরে জেলা প্রশাসক সামগ্রিক সবগুলো বিষয় নিয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করে জরুরি ভিত্তিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠাবে।

ওই চিঠিতে বলা হয়, ‘শিক্ষার্থীদের মেধার লালন, মূল্যায়ন এবং প্রণোদনা দিলে মেধাবীরা আরও বেশি উৎসাহ-উদ্দীপনা পাবে। এজন্য সরকারি, বেসরকারি ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনেক সময় এমএসসি, এইচএসসি, স্নাতক, স্নাতকোত্তর বা সমপর্যায়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অসাধারণ মেধাবীদের সংবর্ধনা দেয়া হয়ে থাকে। তবে জেলা বা উপজেলা পর্যায়ে সাধারণভাবে সপ্তম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত উত্তীর্ণ মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা, সম্মাননা বা সনদ দেয়া হয় না। তাদেরও মূল্যায়ন করে উৎসাহ যোগাতেই এই উদ্যোগ।

মন্ত্রীপরিষদ থেকে বলা হচ্ছে, আজকের মেধাবীরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। দেশ গঠনে তাদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে মাধ্যমিক ও সমপর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের এই প্রণোদনাটি দেয়া হবে। মন্ত্রী পরিষদের চিঠিতে ছাত্র-ছাত্রীদের তালিকা সংগ্রহ করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আগামীতেও এই ধারা অব্যাহত রাখা হবে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on pocket
Pocket
Share on email
Email
Share on print
Print

Related Posts

সাম্প্রতিক খবর

Close Menu