ভোটের আগেই হাইস্কুলে ভর্তি পরীক্ষা!

RAB 8 Barisal

সরকারি হাইস্কুলে ভর্তি পরীক্ষা ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে নেয়া হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) এ বিষয়ে অনুমোদন চাওয়া হয়। উল্লিখিত সময়ে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করার অনুমতি দিতে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। চলতি সপ্তাহে এই অনুমোদনপত্র শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইসির সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা জাগো নিউজকে বলেন, আগামী ১৭ থেকে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত সরকারি স্কুলে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করার অনুমোদন চেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ইসিতে চিঠি দেয়া হয়। যেহেতু স্কুলে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা একটি মৌলিক বিষয়, আর এ সময়ের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ইসি’র কোনো কর্মসূচি নেই। সেহেতু ১৭ থেকে ২০ ডিসেম্বর ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করার অনুমোদন দিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। চলতি সপ্তাহে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এ বিষয়ে সম্মতিপত্র পাঠানো হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, আগামী ১ জানুয়ারি পাঠ্যপুস্তক উৎসবকে কেন্দ্র করে দেশের সরকারি-বেসরকরি স্কুলের ভর্তি পরীক্ষা ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করার প্রস্তুতি নেয়া হয়। ডিসেম্বরে নির্বাচন হওয়ায় এ পরীক্ষা আয়োজন করা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়। এ কারণে এখন পর্যন্ত সরকারি বিদ্যালয়ে প্রথম থেকে ৮ম শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষার সময় ঘোষণা করা হয়নি।

কর্মকর্তারা জানান, প্রথম পর্যায়ে ২৩ ডিসেম্বর নির্বাচনের সময় নির্ধারণ করায় ডিসেম্বরের শেষের দিকে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের প্রস্তুতি শুরু হয়। পরে নির্বাচন পিছিয়ে ৩০ ডিসেম্বর যাওয়ায় ১৭ থেকে ২০ ডিসেম্বর সরকারি স্কুলে ভর্তি পরীক্ষা ও লটারি আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ সময়ে নিষেধাজ্ঞা থাকায় গত বৃহস্পতিবার শিক্ষামন্ত্রণালয় থেকে ইসিতে চিঠি দিয়ে অনুমোদন চাওয়া হয়।

জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হক জাগো নিউজকে বলেন, ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনে ইসির অনুমোদন চেয়ে আমরা গত বৃহস্পতিবার চিঠি দেই। এ বিষয়ে আমাদের এখনো কিছু জানানো হয়নি। তবে ১৭ থেকে ২০ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষা ও লটারি আয়োজন করতে সব প্রস্তুতি রয়েছে।

এ বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) পরিচালক অধ্যাপক আবদুল মান্নান জাগো নিউজকে বলেন, ইসির নির্দেশনামতো বার্ষিক পরীক্ষা এগিয়ে আনা হয়েছে। যেহেতু ৩০ ডিসেম্বর ভোট হবে। তাই আগের নির্ধারিত সময়সূচিতে পরীক্ষা নেয়ার সুযোগ আছে। এই কথাটি উল্লেখ করেই ইসির কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ইসি থেকে অনুমতি দেয়া হলে, আগামী ১৭ থেকে ১৯ ডিসেম্বরের মধ্যে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় থেকে ৭ম শ্রেণি পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষা ও ২০ ডিসেম্বর প্রথম শ্রেণির লটারির আয়োজন করা হবে। প্রথম শ্রেণির লটারির ফলাফল সেদিনেই প্রকাশ করা হবে। আর পরীক্ষার ফল ডিসেম্বরের শেষের দিকে অনলাইনে প্রকাশ করা হবে। সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে ইচ্ছুকরা আগামী ১ থেকে ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।

Advertisements

মন্তব্য করুন