বিএড শিক্ষাক্রমে পরিবর্তন আনা হবে-শিক্ষামন্ত্রী

nahid_1

আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞানে দক্ষ নতুন প্রজন্ম গড়ার উপযোগী শিক্ষক তৈরির জন্য ‘ব্যাচেলর অব এডুকেশন’ (বিএড) শিক্ষাক্রমে পরিবর্তন আনা হচ্ছে। এজন্য খসড়া চূড়ান্ত করার কাজ চলছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকা সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ মিলনায়তনে ‘পরিমার্জিত বিএড শিক্ষাক্রমের চূড়ান্তকরণ’ শীর্ষক দিনব্যাপী জাতীয় কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

কর্মশালায় জানানো হয়, ‘বর্তমানে প্রচলিত বিএড শিক্ষাক্রম ২০০৬ সাল থেকে চালু আছে। এতে জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০-দৃষ্টিভঙ্গি, মাধ্যমিক স্তরের পরিমার্জিত শিক্ষাক্রম ২০১২-এর চাহিদা, তথ্যপ্রযুক্তির আমূল পরিবর্তন ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত নেই। এসব শিক্ষাক্রমে অন্তর্ভুক্ত করা এ উদ্যোগের লক্ষ্য। চলমান এক বছর মেয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সকে দুটি সেমিস্টারে ভাগ করা হবে। প্রথম সেমিস্টারের ব্যাপ্তিকাল হবে জানুয়ারি থেকে জুন এবং দ্বিতীয় সেমিস্টারের ব্যাপ্তিকাল জুলাই থেকে ডিসেম্বর। প্রশিক্ষণের ফল বিভাগের পরিবর্তে লেটার গ্রেডে প্রকাশ করা হবে।’

শিক্ষা সচিব নজরুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যদের মধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক হারুন উর রশীদ, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম এ মান্নান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন, টিকিউআই-২ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক বনমালী ভৌমিক এবং এডিবি প্রতিনিধি এবাদুর রহমান বক্তৃতা করেন।

কর্মশালায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গত অর্ধযুগে বাংলাদেশের শিক্ষা খাতে প্রভূত উন্নয়ন হয়েছে। এখন সময় এসেছে শিক্ষার মানোন্নয়নের। শিক্ষার মানোন্নয়নের মূল কারিগর   শিক্ষক সমাজ। আধুনিক যুগোপযোগী শিক্ষার সঙ্গে তাল মিলিয়ে ছাত্রছাত্রীদের গড়ে তুলতে শিক্ষকদেরও তৈরি হতে হবে।’

মন্ত্রী বিএড শিক্ষাক্রমে শিক্ষকদের নৈতিক মূল্যবোধ ও দায়িত্বশীলতার বিষয়াদি গুরুত্ব সহকারে অন্তর্ভুক্ত করার পরামর্শ দেন।

তিনি আগামী দিনের শিক্ষক সমাজকে আইটিনির্ভর শিক্ষা প্রদান পদ্ধতির দক্ষ কারিগর বানানোর উদ্যোগ নেওয়ার জন্য বলেন।

মন্ত্রী ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় বাস্তবায়নে একটি দক্ষ নতুন প্রজন্ম গড়ার কাজে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ