বায়োটেকনোলোজি ইনস্টিটিউট চালু করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে রাবিতে

RAB 8 Barisal

বায়ো সায়েন্সবিষয়ক শিক্ষা ও গবেষণার মানোন্নয়নে  চীনের হুয়াজং বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে পাঁচটি বিষয়ে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)। এর ধারাবাহিকতায় রাবিতে বায়োটেকনোলোজি ইনস্টিটিউট চালু করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

হুয়াজং বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে প্রতিষ্ঠানের ভাইস প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক জিং ডেং এবং রাবির পক্ষে অধ্যাপক আব্দুস সোবহান স্মারকে স্বাক্ষর করেন। আগামী পাঁচ বছরের জন্য এ চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়।

আজ শুক্রবার (৫ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহান এ তথ্য জানান।

অধ্যাপক আব্দুস সোবহান জানান, রাবিতে বায়োটেকনোলজি ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা, দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার সুযোগ সৃষ্টি, জীববিদ্যা, উদ্যানতত্ত্ব, ফসল সংরক্ষণ, জলজ প্রাণি পালন, চাষ পরবর্তী প্রক্রিয়া ও কৃষি অর্থনীতি বিষয়ে গবেষণা, যৌথ উদ্যোগে পরিবেশ ও কৃষি উন্নয়ন সংক্রান্ত সেমিনার-সম্মেলনের আয়োজন করার বিষয়ে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

২০১২ সালে হুয়াজং বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রতিনিধিদল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আসে। ওই সময় তাঁদের সঙ্গে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১২ জন পিএইচডি করা  গবেষক পাঠানোর চুক্তি হয়। নতুন করে কয়েকটি চুক্তি হওয়ায় দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে দুই বিশ্ববিদ্যালয়েই গবেষণার সুযোগ বৃদ্ধি পাবে বলে প্রত্যাশা করছেন অধ্যাপক আব্দুস সোবহান।

সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা, চৌধুরী মো. জাকারিয়া, প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান খান, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকার, জীব ও ভূ-বিজ্ঞান অনুষদের অধিকর্তা অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, বায়োলজিক্যাল ইনস্টিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক মনজুর হোসেন, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক এ এফ এম আলী হায়দার উপস্থিত ছিলেন।

গত ৪ সেপ্টেম্বর অধ্যাপক আব্দুস সোবহানের প্রতিনিধিত্বে পাঁচ সদস্যের একটি দল চীনের হুয়াজং বিশ্ববিদ্যালয় সফর করে।

Advertisements

মন্তব্য করুন