বাণিজ্যমেলায় পার্ট টাইম চাকুরি

প্রতিবারের মতো আগামী ১ জানুয়ারি থেকেই শুরু হওয়ার কথা রয়েছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার। গতবার এই মেলায় সাড়ে চার শতাধিকেরও বেশি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছিল, যেখানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কয়েক হাজার তরুণ-তরুণী এক মাসের পার্টটাইম কাজের সুযোগ পেয়েছিলেন। মেলা উপলক্ষে তাই এবারও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ইতিমধ্যেই শুরু করেছে তাদের কর্মী নিয়োগ-প্রক্রিয়া। সেসব প্রতিষ্ঠানে পার্টটাইম কর্মী হিসেবে যোগ দিতে পারেন আপনিও।

বাণিজ্যমেলাশিক্ষাগত যোগ্যতা
বাণিজ্য মেলায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের হয়ে যারা পার্টটাইম ভিত্তিতে কাজ করেন, তাদের একটি বড় অংশ আসে বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে। বাণিজ্য মেলায় খণ্ডকালীন কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদেরই বেশি অগ্রাধিকার দেয়া হয়। বিশেষ করে সদ্য স্নাতক অথবা বর্তমানে স্নাতক করছেন, নিয়োগের ক্ষেত্রে তারাই প্রাধান্য পান।

অন্য যোগ্যতা
মেলায় কাজ করতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতার পাশাপাশি যোগাযোগের দক্ষতা, উপস্থাপনার কৌশল, স্মার্টনেস, উপস্থিত বুদ্ধিমত্তা ইত্যাদি বিষয়গুলোও গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হয়। এ ক্ষেত্রে কাজের পূর্ব অভিজ্ঞতা আছে কি না, তা খুব একটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। তবে অভিজ্ঞতা থাকলে তাদের অগ্রাধিকার দেয়া হয়।

কিভাবে পাবেন কাজ
ব্যক্তিগত যোগাযোগের মাধ্যমেই বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠান খণ্ডকালীন কর্মী নিয়োগ দিয়ে থাকে। এ ক্ষেত্রে মেলায় যেসব প্রতিষ্ঠান নিয়মিত অংশ নেয়, তাদের সাথে যোগাযোগ রাখলে কাজ পাওয়া সহজ হয়। এসব প্রতিষ্ঠানের মানবসম্পদ বিভাগে সিভি দিয়ে রাখতে পারেন আপনি। তাছাড়া যেসব ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান কর্মী সরবরাহ করে, তাদের সাথেও যোগাযোগ করতে পারেন।
এছাড়া অনলাইনে বিভিন্ন জব পোর্টালে বিজ্ঞাপন দিয়েও লোকবল নিয়োগ করে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

সুযোগ-সুবিধা
বাণিজ্য মেলায় এক মাস প্রতিষ্ঠানভেদে ১৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করা যাবে। এ ছাড়া সকালের নাশতা, দুপুরের খাবার, বিকেলের নাশতা এবং যাতায়াত খরচও দেয়া হয়। কাজ করার সময় মেলার জন্য প্রতিষ্ঠানের নির্দিষ্ট পোশাক দেয়া হয়। এর বাইরে এক মাসের কাজের অভিজ্ঞতা সনদও পেতে পারেন, যা পরবর্তী সময়ে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে বা অন্য কোথাও চাকরির ক্ষেত্রে আবেদনপত্রে অভিজ্ঞতা হিসেবে দেখানো যায়।
অনেক প্রতিষ্ঠান মেলায় কাজ করার জন্য কর্মীকে যোগাযোগ দক্ষতা, উপস্থাপনা ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয়ে এক বা দুই সপ্তাহের ট্রেনিং দেয়। যা আপনার কর্মজীবনে সহায়ক হতে পারে। এ ছাড়া মেলায় ভালোভাবে কাজ করলে পরবর্তী সময়ে স্থায়ী চাকরি পাওয়ার সুযোগও তৈরি হতে পারে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ