বাংলাদেশের নদী

০১. বাংলাদেশের কোথায় সুরমা ও কুশিয়ারা নদী মিলিত হয়ে মেঘনা নামকরণ করেছে?
উত্তরঃ ভৈরব।
০২. সুরমা নদী কুশিয়ারা নদীর সঙ্গে কোথায় মিলিত হয়েছে? বা সুরমা ও কুশিয়ারা কোন নদীতে মিলিত হয়েছে?
উত্তরঃ মেঘনা।
০৩. বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি নাব্য নদী কোনটি?
উত্তরঃ মেঘনা।
০৪. পানি বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য কাপ্তাই বাঁধ দেয়া হয়েছে কোন নদীর ওপর?
উত্তরঃ কর্ণফুলী।
০৫. ভারত কোন নদীর ওপর ফারাক্কা বাঁধ তৈরি করেছে?
উত্তরঃ গঙ্গা।
০৬. সুরমা ও কুশিয়ারা নদীর মিলিত স্রোত মেঘনা নাম ধারণ করার পূর্বে কোন নামে পরিচিত ছিল?
উত্তরঃ কালনী।
০৭. বাংলাদেশের কোন নদীটি চর উৎপাদক নদী হিসেবে পরিচিত?
উত্তরঃ যমুনা।
০৮. বাংলাদেশের কোন নদীর নাম একজন মানুষের নামে রাখা হয়েছে?
উত্তরঃ রূপসা (রূপলাল সাহার নামে)।
০৯. টঙ্গীর বিশ্ব এজতেমা কোন নদীর তীরে অবস্থিত?
উত্তরঃ তুরাগ নদীর তীরে।
১০. কোন নদীর মোহনায় নিঝুম দ্বীপ অবস্থিত?
উত্তরঃ মেঘনা নদীর মোহনায়।
১১. বাংলাবান্ধা কোন নদীর তীরে অবস্থিত?
উত্তরঃ মহানন্দা।
১২. বাংলাদেশ ও ভারতের বিভক্তকারী নদী কোনটি? বা সুন্দরবনের পশ্চিমে বাংলাদেশে ও ভারতের মধ্যে সীমা নির্ধারণকারী  নদীর নাম কী?
উত্তরঃ হাড়িয়াভাঙ্গা।
১৩. বাঙালি ও যমুনা নদীর সংযোগ কোথায়?
উত্তরঃ সিরাজগঞ্জে।
১৪. উৎপত্তিস্থলে মেঘনার নাম কী?
উত্তরঃ বরাক নদী।
১৫. কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র কোথায় অবস্থিত?
উত্তরঃ কর্ণফুলী নদীর ওপর।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ