পলিটেকনিকের ১১৫০ জনকে প্রশিক্ষণ দেবে সিঙ্গাপুর

দেশের সব পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের এক হাজার ১৫০ জন শিক্ষক ও কারিগরি শিক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে প্রশিক্ষণ দেবে সিঙ্গাপুর। আজ মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরে এ সংক্রান্ত অংশীদারত্ব চুক্তি সই হয়।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে অতিরিক্ত সচিব ও কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাস এবং সিঙ্গাপুর সরকারের পক্ষে নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফুং তেজ ফুন চুক্তিতে সই করেন। এ সময় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের উপস্থিতিতে নানিয়ান পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে চুক্তি অনুযায়ী, আগামী তিন বছরে এক থেকে ছয় সপ্তাহ মেয়াদি মোট ৬০টি প্রশিক্ষণ কোর্সে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটগুলোর বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষক এবং কারিগরি শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা মিলে মোট এক হাজার ১৫০ জন সিঙ্গাপুরে অবস্থিত নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনালে প্রশিক্ষণ নেবেন।

কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের স্কিলস অ্যান্ড ট্রেনিং এনহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্টের  (স্টেপ) মাধ্যমে এ সহযোগিতার আওতায় নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশে ১০টি পলিটেকনিট ইনস্টিটিউটে ১০টি অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরি স্থাপন করবে বলেও চুক্তিতে উল্লেখ করা হয়।

চুক্তির আওতায় প্রশিক্ষণ ও ল্যাব স্থাপনে ৫৬ কোটি টাকা ব্যয় হবে, যার ৩১ দশমিক ১৫ শতাংশ নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনাল এবং ৬৮ দশমিক ৮৫ শতাংশ বাংলাদেশ সরকার, বিশ্বব্যাংক ও কানাডার অর্থায়নে পরিচালিত স্টেপ প্রকল্প বহন করবে।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে স্টেপ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. ইমরান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ এস  মাহমুদ, ন্যাশনাল স্কিলস ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিল সেক্রেটারিয়েটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম খোরশেদ আলম, সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মাহবুব উজ জামান এবং বাংলাদেশে সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার চ্যান হেং উইং উপস্থিত ছিলেন।

সিঙ্গাগাপুর সরকারের পক্ষে চুক্তি সই অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট বিভাগের পরিচালক অ্যান্থনি উন, কারিগরি শিক্ষা উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের জেনারেল ম্যানেজার ডেনিলস চিয়া এবং নানিয়ান পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের প্রিন্সিপাল জিয়ান লিউ।

অনুষ্ঠানে বিশ্বব্যাংকের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ব সংস্থাটির সিনিয়র অপারেশনস অফিসার ড. মো. মোখলেছুর রহমান।

শিক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষায় সহায় দেওয়ায় সিঙ্গাপুর সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ সরকারের দৃঢ় অঙ্গীকার ও সর্বাত্মক পদক্ষেপ গ্রহণ এবং উন্নয়ন অংশীদারদের সহযোগিতায় কারিগরি শিক্ষায় যুগান্তকারী অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে। তিনি বলেন,  ২০১৪ সালে অনুরূপ এক চুক্তির আওতায় নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের ৪২০ জন শিক্ষক-কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ দেয়, যার ইতিবাচক প্রভাব বাংলাদেশের কারিগরি শিক্ষাঙ্গনে এরই মধ্যে পরিলক্ষিত হচ্ছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার দায়িত্ব নেওয়ার সময় মোট শিক্ষার্থীর ১ শতাংশের কম কারিগরি শিক্ষায় লেখাপড়া করত। বর্তমানে এ হার ১২ শতাংশের বেশি।

নাহিদ বলেন, ২০২০ সালের মধ্যে এ হার ২০ শতাংশে উন্নীত করার পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। সিঙ্গাপুর সরকারের সহযোগিতা বাংলাদেশ সরকারের এ লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় নানিয়ান পলিটেকনিক ইন্টারন্যাশনালের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফুং তেজ ফুন বাংলাদেশে কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নে তাঁর সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ