“পরীক্ষার চূড়ান্ত প্রস্ত্ততির জন্য পরিকল্পিতভাবে এগোতে হবে”

Principal-2

পরীক্ষার চূড়ান্ত প্রস্ত্ততির জন্য পরিকল্পিতভাবে এগোতে হবে। যেমন প্রথমে রিভিশন রুটিন তৈরি করে সে অনুযায়ী অপেক্ষাকৃত দুর্বল চ্যাপ্টারগুলোর ঝালাই ও সবগুলো আগাগোড়া পড়তে হবে। বিশেষ করে নিজেই নিজের মডেল টেস্ট নিতে হবে। এরপর পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে নিজেই নিজের পরীক্ষাপত্র মূল্যায়ন করবে এবং সে-মতে ত্রুটি-বিচ্যুতিগুলো আলাদাভাবে নোট করে বারবার পড়বে। এতে নিজেই উপলব্ধি করতে পারবে যে পরীক্ষার জন্য তোমার প্রস্ত্ততি ভালো। এতে আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে। আর এই আত্মবিশ্বাসই তোমাকে শতভাগ সঠিক উত্তর দিতে বিরাট ভূমিকা রাখবে। বেশি করে বানানরীতি জানতে তথা চর্চা করতে হবে। বানান যেন ভুল না হয় সেদিকে অবশ্যই লক্ষ রাখবে।

অধ্যক্ষ
রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ, ঢাকা

হোম পরীক্ষা চাকুরী উচ্চশিক্ষা