দুই জেলায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষককে প্রধান শিক্ষকে পদায়ন

Share on facebook
Share on twitter
Share on pocket
Share on email
Share on print

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলতি দায়িত্বে দুই জেলায় আরও পাঁচ শতাধিক শিক্ষককে পদায়ন দেয়া হবে। আগামী সপ্তাহে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হবে বলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে।

মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা জানান, চলতি সপ্তাহে নেত্রকোনা, কুষ্টিয়া ও ঠাকুরগাঁও জেলায় ৭৭৬ জন শিক্ষককে চলতি দায়িত্বে প্রধান শিক্ষক পদে পদায়ন করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে কিশোরগঞ্জ ও মানিকগঞ্জ জেলার ৫২৩ জন জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষক চলতি দায়িত্ব দেয়া হবে।

জানা গেছে, সম্প্রতি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) থেকে কিশোরগঞ্জ ও মানিকগঞ্জ জেলার প্রধান শিক্ষক শূন্য প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ শিক্ষকদের তালিকা পাঠানো হয়। তালিকা অনুযায়ী মানিকগঞ্জ জেলায় ২৭৩ জন ও কিশোরগঞ্জে ২৫৫ জন শিক্ষক রয়েছে। চলতি সপ্তাহে মন্ত্রণালয় থেকে এ দুই জেলার প্রধান শিক্ষক পদায়নের নির্দেশনা জারি করা হবে।

এ বিষয়ে প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. গিয়াসউদ্দিন আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে মানিকগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জের তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হবে। এ দুই জেলার ৫২৩ জন জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষককে চলতি দায়িত্বে প্রধান শিক্ষক পদে দায়িত্ব দেয়া হবে।

তিনি বলেন, এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। পর্যায়ক্রমে সব জেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শূন্য আসনে চলতি দায়িত্বে পদায়ন করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যে সাত জেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহকরী শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষকের চলতি দায়িত্বে পদোন্নতি দেয়া হয়। এছাড়াও মেহেরপুর, ফরিদপুর জেলার শিক্ষকদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে তাদেরকেও এ দায়িত্ব দেয়া হবে।

জানা যায়, জ্যেষ্ঠ শিক্ষকদের তালিকা প্রণয়নে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরকে দায়িত্ব দেয়া হয়। সে তালিকার ভিত্তিতে মন্ত্রণালয় থেকে যোগ্য শিক্ষকদের পদায়নে অনুমোদন দেয়। অধিদফতর সেসব শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষক পদে পদায়ন করে থাকে।

উল্লেখ্য, গত ২৩ মে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের শূন্য স্থানে জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকদের দায়িত্ব দেয়ার ঘোষণা দেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on pocket
Pocket
Share on email
Email
Share on print
Print

Related Posts

সাম্প্রতিক খবর

Close Menu