জাপানে উচ্চ শিক্ষায় তিন ক্যাটাগরির প্রতি ক্যাটাগরিতে ৫০ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পাবে!

???????????????????????????????

জাপান সরকার মনবুকাগাশো বৃত্তির আওতায় অনার্স ও মাস্টার্স অধ্যয়নের জন্য বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের থেকে দরখাস্ত আহবান করেছে। তিনটি ক্যাটাগরিতে এ বৃত্তি দেয়া হবে। প্রতি ক্যাটাগরিতে ৫০ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পাবে। আবেদন করার শেষ তারিখ ১৪ মে ২০১৫।

ক্যাটাগরি:
আন্ডারগ্রাজুয়েট: ১৯৯৪ সালের পহেলা এপ্রিলের মধ্যে জন্ম গ্রহণ করতে হবে। এছাড়া উচ্চ মাধ্যমিক পর‌্যন্ত কোন কোন বিরতি থাকা চলবে না।
কলেজ অব টেকনোলজী: জন্ম তারিখ পহেলা এপ্রিল ১৯৯৪ এর আগে হওয়া চলবে না। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।
রিসার্চ (মাস্টার্স ও পিএইচডি): আগ্রহী প্রার্থীর জন্ম তারিখ পহেলা এপ্রিল ১৯৮১ এর আগে হওয়া চলবে না। প্রার্থীকে স্নাতক ডিগ্রিধারী হতে হবে । তবে স্নাতক শেষ হওয়ার পর দুই বছরের বেশী বিরতি থাকা চলবে না।

বৃত্তির বিষয়:
আইন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, সমাজ বিজ্ঞান, লিটারেচার, ইতিহাস, জাপানিজ ভাষা, অর্থনীতি, ব্যবসায় প্রশাসন, গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ণ, ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং, ম্যাকানিকাল স্টাডিজ, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড আর্কিটেকচার, কেমিক্যাল স্টাডিজ, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইন্ডাস্ট্রিয়াল কেমেস্ট্রি, এগ্রিকালচার সায়েন্স, হাইজিনিক স্টাডিজ ও ফুড সায়েন্স।

নিয়মাবলী:
আগ্রহী প্রার্থীকে প্রথমে প্রাথমিক নির্বাচনের জন্য আবেদন করতে হবে। এ জন্য http://banbeis.gov.bd/mext/ লিংকে গিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে ।

অনলাইন ফর্ম এ সাবম্টি বাটনে ক্লিক করার পর প্রার্থীর প্রদত্ত ই-মেইলে প্রার্থীর আইডি ও পাসওয়ার্ড চলে যাবে। প্রার্থীকে ই-মেইল ওপেন করে এক্টিভ লিংক এ ক্লিক করে আইডি ও পাসওয়ার্ড প্রদান করে আবেদন পত্রটি হুবহু প্রিন্ট করা যাবে ।
প্রিন্টকৃত আবেদন পত্রের সাথে সকল পরীক্ষার শুধু মার্কশীটের সত্যায়িত কপি সংযুক্ত করতে হবে।

বিদেশী ডিগ্রীর ক্ষেত্রে মার্কস কনভার্সন সার্টিফিকেট প্রদান করতে হবে ।কোন প্রার্থীর পরীক্ষা জিপিএ-৫ স্কেল এ হলে প্রাপ্ত নম্বরের সাথে ১৬ গুণ করে এবং জিপিএ-৪ স্কেলে হলে ২০ দিয়ে গুণ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রদত্ত অনলাইন ফর্ম এর % ঘরে লিখতে হবে। যেমন কোন প্রার্থীর প্রাপ্ত জিপিএ ৪.৮ হলে ৫ স্কেল এ % হবে (৪.৮*১৬)=৭৬.৮।
প্রাথমিক নির্বাচনের জন্য চাহিত সকল মার্কশীট সহ আবেদনপত্রের হার্ড কপি আগামী ১৪ মে ২০১৫ তারিখ বিকাল ৪.০০ টার মধ্যে ডাকযোগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের শাখা-৯৯ এ প্রেরণ করতে হবে। অথবা সরাসরি বাংলাদেশ সচিবালয়ের ৯ নং কাউন্টারে জমা দিতে হবে ।
আবেদনপত্র একটি বড় খামে ভরতে হবে। খামের ওপর প্রোগাম এর নাম ও বিষয় অবশ্যই উল্লেখ করতে হবে ।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনলাইন ফর্ম পূরণ সম্পর্কিত কোন সমস্যার জন্য scholarship@banbeis.gov.bd তে ই-মেইল করা যাবে।
একজন প্রার্থী কেবলমাত্র একটি প্রোগামের জন্য আবেদন করতে পারবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রাথমিক ভাবে মনোনীত প্রার্থীদের জাপান দূতাবাস কর্তৃক আয়োজিত লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে ।

নির্বাচিত হলে উক্ত বৃত্তি গ্রহণে অনিচ্ছা প্রকাশ করবেন না মর্মে নিশ্চিত এমন প্রার্থীদেরকেই আবেদন করতে বলা হয়েছে।