জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কোন পথে- পক্ষে vs বিপক্ষে

পক্ষে
অবশ্যই সুফল বয়ে আনবে। সরকারি কলেজগুলো জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে না থাকলে সেশনজট কমবে, তদারকি বাড়বে। আমরা এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানাই।
মোর্শেদ আলম
পরিসংখ্যান বিভাগ, ঢাকা কলেজ

সরকারি কলেজগুলো যদি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে না থাকে, তবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চাপ কমে যাবে। এতে সেশনজট কম হবে এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম পরিচালনা করা সহজ হবে।
তৈয়্যবা নূপুর
মার্কেটিং বিভাগ, ইডেন মহিলা কলেজ, ঢাকা

কর্তৃপক্ষের এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানাই। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মকানুনে কিছুটা যে ঢিলেঢালা ভাব দেখা যায়, সেটা আর থাকবে না। যথেষ্ট শৃঙ্খলের মধ্যে শিক্ষার্থীরা পাবে একটি সুন্দর ভবিষ্যত।
মাহামুদুন্নবী তালুকদার
প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগ, সরকারি আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় মানেই সেশনজট। যদি সরকারি কলেজগুলোকে আলাদা করা হয় তবে সে সমস্যা অনেকটাই কমে আসবে।
সুলতানা আইরিন
সরকারি কারমাইকেল কলেজ, রংপুর

সরকারি কলেজগুলো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে গেলে অবশ্যই ভালো হবে।
তাইবুর রহমান
হিসাববিজ্ঞান বিভাগ
দিনাজপুর সরকারি কলেজ

বেসরকারি কলেজের জন্যও এই বিধান কার্যকর করা হোক।
রুম্মানুল আলম
ডেল্টা কলেজ, রংপুর

সরকারি কলেজগুলো অন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে গেলে অনেক ক্ষেত্রেই এর সুফল আমরা পাব। বিশেষ করে সেশনজট কমে আসবে। নিয়মিত পরীক্ষাগুলো হবে। বিষয়টি আমি ইতিবাচক হিসেবে দেখছি এবং এটি বাস্তবায়নের জন্য অপেক্ষা করছি।
মুন্নি চন্দ
গণিত বিভাগ, এমসি কলেজ, সিলেট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চাপ কমে গেলে তো বেসরকারি কলেজগুলোর প্রতি অনেক বেশি পর্যবেক্ষণ করার সুযোগ হবে। আমাদের মতো বেসরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য খুবই ভালো খবর।
হাবীবা সুলতানা
তেজগাঁও কলেজ, ঢাকা

বেসরকারি কলেজেও এ ব্যবস্থা নিলে ভালো হতো।
ইফফাত সুলতান
মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ, ঢাকা

খবরটি জেনে খুবই আনন্দিত হলাম। ধন্যবাদ কর্তপক্ষকে
পলি বিল্লাহ
তিতুমীর সরকারি কলেজ, ঢাকা

স্বায়ত্তশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কাজের চাপ কমাতেই কিন্তু জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল। কিন্তু ফল হয়েছে উল্টো। এমনিতেই অনেক সময় নষ্ট হয়েছে। দ্রুত এর বাস্তবায়ন দেখতে চাই।
রাশিদুল হাসান
সরকারি ব্রজমোহন কলেজ
বরিশাল


বিপক্ষে

সরকারি কলেজগুলো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে দেওয়া হলে তা শিক্ষার্থীদের জন্য কোনো সুফল বয়ে আনবে না। বরং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে ‘গাজীপুর উচ্চশিক্ষা বোর্ড’ নামে ঢেলে সাজানো হোক।

মুস্তাফিজুর রহমান
অর্থনীতি বিভাগ
দিনাজপুর সরকারি কলেজ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে, তাতে এ সিদ্ধান্তের প্রয়োজন আছে বলে মনে করি না।
সঞ্জয় সরকার
কাদিরাবাদ ক্যান্টনমেন্ট সাপার কলেজ
নাটোর

কলেজগুলো আলাদা করার মধ্য দিয়ে আমাদের মতো বেসরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের কপালে দুর্ভাগ্যের শেষ পেরেকটুকু ঠুকে দেওয়া হলো। এতে শিক্ষার মানের কোনো উন্নতি হবে না, সেশনজটও কমবে না। বিষয়টি আমাদের মতো বেসরকারি কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য চরম হতাশার।
তাপস সরকার
হিসাববিজ্ঞান বিভাগ
মদনমোহন কলেজ, সিলেট

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে সেশনজট অনেকটা কমিয়ে ফেলেছে। সরকারি কলেজগুলোকে স্বায়ত্তশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে না নিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়কে আরও উন্নত করা উচিত।
সুমাইয়া সুবর্ণা
সরকারি আনন্দমোহন কলেজ
ময়মনসিংহ

এর কার্যকর ফলাফল নিয়ে আমি সন্দিহান। এর ফলে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় আরো সেশনজট বাধিয়ে ফেলতে পারে। কারণ এরা তো ৫০/৬০ জনের একটা ব্যাচ নিয়েই জট বাধায়।
ইমরান হোসাইন
প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগ
সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা

এ সিদ্ধান্তের ফলে বেসরকারি কলেজগুলোর ভবিষ্যৎ অন্ধকার। তারা আরো অবহেলার শিকার হবে।
সৌম দত্ত
ফিন্যান্স বিভাগ
তেজগাঁও কলেজ, ঢাকা

আমাদের কপালে যে কী আছে, কে জানে! এর ভালো–মন্দ নিয়ে আমি সন্দিহান।
ফারজানা আফরোজ
সরকারি দেবেন্দ্র কলেজ, মানিকগঞ্জ

বর্তমান অবস্থাতেই ভালো আছে। আমি মনে করি না পরিবর্তন আনতে হবে।
সৌরভ দাশ
লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ, লক্ষ্মীপুর

আমাদের জীবনের তিনটি বছর ইতিমধ্যে চলে গেছে সেশনজটে! এই প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন করতে গিয়ে আরো বেশি জটে পড়তে চাই না।
সোহাগ হাসান
ফিন্যান্স বিভাগ
আজম খান সরকারি কমার্স কলেজ, কুষ্টিয়া

এখন যে গতিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এগোচ্ছে, তাতে স্থানীয় পর্যায়ের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আমাদের নেওয়ার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না।
আল ইমরান
সরকারি আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে আরও অধিকসংখ্যক যোগ্য ও দক্ষ লোক নিয়োগের মাধ্যমে সেশনজট কমানোসহ শিক্ষাব্যবস্থার উন্নয়ন সম্ভব।
তৌফিক সনি
শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজ, ময়মনসিংহ

হোম পরীক্ষা চাকুরী উচ্চশিক্ষা