জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিষয় পরিবর্তন) মাইগ্রেশন এর নিয়মাবলি!

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ১ম বর্ষ ভর্তি প্রক্রিয়ার কোন ১ম অথবা ২য় মেধাতালিকায় সুযোগ প্রাপ্ত ভর্তি ইচ্ছুকরা তাদের সুযোগপ্রাপ্ত বিষয়টি পছন্দ না হলে তারা চাইলে বিষয় পরিবর্তনের জন্য আবেদন করতে পারেন। এই প্রক্রিয়াকে বিষয় পরিবর্তন বা মাইগ্রেশন বলা হয়ে থাকে। চলুন জেনে নেওয়া যাক মাইগ্রেশন এর বিস্তারিত পদ্ধতি…

কোন ক্ষেত্রে মাইগ্রেশন করতে পারবেন কোন ক্ষেত্রে পারবেন নাঃ
আপনি ১ম অথবা ২য় মেধা তালিকা থেকে সুযোগ পেলে মাইগ্রেশন করতে পারবেন। রিলিজ স্লিপে সুযোগ প্রাপ্তরা মাইগ্রেশন এর সুযোগ পাবেন না।

Migration

মাইগ্রেশন সংশ্লিষ্ট কলেজে আসন শূন্য থাকা সাপেক্ষে এবং মেধা স্কোরের ভিত্তিতে তার তার বিষয় পছন্দক্রমের ঊর্ধ্বক্রমে বিষয় পরিবর্তন করা হবে। ধরেন আপনি আবেদনের সময় বিষয় দিয়েছনঃ ১। ইংরেজী, ২। অর্থনীতি, ৩। বাংলা, ৪। ইতিহাস ৫। সমাজবিজ্ঞান।

এখন আপনি পছন্দক্রমে ২-৫ নম্বর এর মধ্য থেকে কোন একটি বিষয়ে সুযোগ পেয়েছেন। তাহলে আপনি পছন্দক্রমের যত নম্বর বিষয়ে সুযোগ পেয়েছেন শুধুমাত্র সে বিষয়ের আগের বিষয় গুলোর জন্য মাইগ্রেশন এর আবেদন করতে পারবেন। কিন্তু পছন্দক্রমের ১ নম্বর বিষয়ে সুযোগ পেলে মাইগ্রেশন এর আবেদন করতে পারবেন না।

মাইগ্রেসশন এ আপনার বিষয় পরিবর্তন হলে পূর্বের বিষয়ের ভর্তি বাতিল হওয়ে যাবে এবং পরিবর্তিত বিষয়ে ভর্তি নিশ্চিত হওয়ে যাবে। এক্ষেত্রে আর পরবর্তীতে পূর্বের বিষয়ে ফিরে আসার সুযোগ থাকবে না। তবে মাইগ্রেসশন এ বিষয় পরিবর্তন না হলে পূর্বের বিষয়ে ভর্তি বহাল থাকবে।

মাইগ্রেসশন এর ফলাফলঃ
১ম মেধা তালিকা থেকে মাইগ্রেসশন এর আবেদনকারীদের ফলাফল ২য় মেধা তালিকার ফলাফল এর সাথে দেওয়া হবে এবং ২য় মেধা তালিকা থেকে মাইগ্রেসশন এর আবেদনকারীদের ফলাফল রিলিজ স্লিপ এর আবেদনের আগে কোটার ফলাফলের সাথে দেওয়া হবে।

সচরাচর জিজ্ঞাসিত প্রশ্নঃ
প্রশ্নঃ মাইগ্রেসন করে আমি আমার বিষয় পরিবর্তন হলে আমাকে কি আবার ভর্তি ফি দিতে হবে?
উত্তরঃ না। আপনাকে আর নতুন করে ভর্তি হওতে হবেনা।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ