ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) আসন্ন গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত!

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল হাকিম সরকার গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্তের বিষয়টি সমকালকে নিশ্চিত করেন।

এর আগে শিক্ষার্থীরা গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিল ও রমজানে ক্লাস পরীক্ষা চালু রাখার দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

001_136914
উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল হাকিম সরকার সমকালকে বলেন, ‘উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ক্যাম্পাস কয়েক মাস বন্ধ ছিল। এসময় শিক্ষার্থীদের অনেক ক্ষতি হয়ে গেছে। এছাড়া শিক্ষার্থীরাও গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিলের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। ইতিমধ্যে অনুষদীয় ডিন, বিভাগীয় সভাপতিদের এ বিষয়ে মতামত নেওয়া হয়েছে। তারা প্রায় সকলেই গ্রীষ্কাকালীন ছুটি বাতিলের পক্ষে মত দিয়েছেন। তাই সংশ্লিষ্ট সকলের মতামতের ভিত্তিতেই গ্রীষ্কালীন ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অচিরেই বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হবে।’

গ্রীষ্কালীন ছুটি বাতিল হলেও রমজানে ক্লাস পরীক্ষা চালু রাখার বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি বলে তিনি জানান।

উপাচার্য বলেন, ‘রমজানে ক্লাস পরীক্ষা চালু রাখার বিষয়ে এখনও কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে রমজানের কয়েক দিন যাতে চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়া যায় সেই বিষয়টি ভাবা হচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘রমজানে পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হলে সংশ্লিষ্ট বিভাগের শিক্ষকরা চাইলে ওইসময় তাদের বিভাগগুলোতে ক্লাস নিতে পারবে।’

এদিকে গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ততে স্বাগত জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী, আগামী ৩ জুন থেকে ১৩ জুন পর্যন্ত পবিত্র শবে-বরাত ও গ্রীষ্মকালীন ছুটি। এর আগে গত বছরের ৩০ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে এক ছাত্র নিহতের জের ধরে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

দীর্ঘ চার মাস পর গত ৩ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়া হয়। শিক্ষার্থীরা শুরু থেকেই দাবি জানিয়ে আসছিলেন, দীর্ঘদিন ক্যাম্পাস বন্ধ থাকার কারণে শিক্ষার্থীদের যে একাডেমিক ক্ষতি হয়েছে তা যেন আসন্ন গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিল করে রমজানে অতিরিক্ত ক্লাস পরীক্ষা নিয়ে ওই ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া যায়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ