অ্যানিমেশন ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

অ্যানিমেশন ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। আর এ ঘোষণা দেওয়া হলো গতকাল সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইটি সোসাইটি (ডিইউআইএস) আয়োজিত চতুর্থ জাতীয় ক্যাম্পাস প্রযুক্তি উৎসবের সমাপনী দিনে। রোববার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-ছাত্র কেন্দ্রে (টিএসসি) শুরু হয় এ উৎসব। এবারে উৎসবের স্লোগান ছিল ‘উন্নত শিক্ষায় চাই তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষাঙ্গন’।

CGA

সমাপনী অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ। তিনি বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। এবার তাঁদের দায়িত্ব তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে দেশকে বদলে দেওয়ার।’

১২ ডিসেম্বর জাতীয় আইসিটি দিবস হিসেবে ঘোষণা এবং এদিন সারা দেশে আইসিটি সম্মেলন করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুপারিশ করবেন বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। শিক্ষার্থীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যানিমেশন ল্যাব প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেন তিনি।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইটি সোসাইটির মডারেটর এ জে এম শফিউল আলম ভূঁইয়া বলেন, দেশের ৭০টি স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এই যে মিলনমেলা, তা ভবিষ্যতে আরও বড় পরিসরে করা হবে।

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ মো. কামাল উদ্দীন, ডেল বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার আতিকুর রহমান এবং এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া বক্তৃতা করেন।

এক্সিম ব্যাংকের সহায়তায় আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে ‘এক শিক্ষার্থী একটি ল্যাপটপ’ প্রকল্পের আওতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০ জন শিক্ষার্থীকে বিনা মূল্যে ল্যাপটপ কম্পিউটার দেওয়া হয়। ল্যাপটপ পাওয়া শিক্ষার্থীরা কর্মজীবনে গিয়ে এ প্রকল্পে অন্তত একটি করে ল্যাপটপ দান করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

ল্যাপটপ পাওয়ার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আতিয়া শারমীন বলেন, ‘কিস্তিতে ল্যাপটপ কেনার পরিকল্পনা ছিল। এটা যে বিনা মূল্যে পাব, তা ভাবিনি। নিজের উন্নয়নের মাধ্যমে যেন দেশের উন্নয়ন করতে পারি, এটাই এখন লক্ষ্য।’

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on telegram
Share on pocket

এরকম আরও নিউজ